ত্রুটি
  • JUser: :_load: ব্যবহারকারীর আইডি: 36 লোড করতে ব্যর্থ

সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আমাদের অবস্থান

বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার বেশ কিছু লক্ষ্য অর্জন করতে পারেছে, যেমন দারিদ্রের হার কমানো, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের লিঙ্গ বৈষম্য কমানো, ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের মৃত্যুহার কমানো, এইচআইভি ভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকর ঔষধের প্রাপ্যতা, ৫ বছরের কম বয়সি শিশুদের কীটনাশক যুক্ত মশারির ব্যবহার এবং যক্ষা সনাক্তকরণ ও সরাসরি তত্ত্বাবধানে মাধ্যমে ঔষধ প্রয়োগের মাধ্যমে যক্ষ্মা নিরাময়ের হার বৃদ্ধি। এছাড়া দারিদ্র্য হার হ্রাস, কম ওজনের শিশুদের সংখ্যা কমানো, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি, নবজাতক ও মাতৃ মৃত্যুহার কমানো, টিকাদান কর্মসূচির উন্নয়ন এবং সংক্রামক ব্যাধির প্রকোপ কমানোর ক্ষেত্রে বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য উন্নতি করেছে।

আমাদের ই-হেলথ ও ই-স্বাস্থ্য সেবাসমূহ

 মোবাইল ফোনে স্বাস্থ্য সেবা | মোবাইল ফোনে স্বাস্থ্য সেবার নম্বরসমূহ | টেলিমেডিসিন সেবা | কমিউনিটি ক্লিনিকসমূহে টেলিমেডিসিন সেবা এসএমএস-এর মাধ্যমে অভিযোগ-পরামর্শ জানানোর ব্যবস্থা  | এসএমএস-এর মাধ্যমে প্রসুতি পরামর্শ | এসএমএস-এর মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরিসংখ্যান | হাসপাতাল অটোমেশন | তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে অফিস উপস্থিতি তদারকি | অনলাইন পপুলেশন হেলথ রেজিস্ট্রি | মানব সম্পদ ডাটাবেইজ | অনলাইনে মেডিকেল-ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষা প্রক্রিয়াকরণ  | বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচী তদারকি সফটওয়্যার|সকল স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান মিলিয়ে বিশাল কমপিউটার নেটওয়ার্ক |স্বাস্থ্য সেবায় জিওগ্রাফিক্যাল ইনফরমেশন সিসটেম | অফিসিয়াল কর্মসূচী ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যার | বাংলাদেশের ই-স্বাস্থ্য সেবা সংক্রান্ত মানদণ্ডসমূহ ও তথ্য-ব্যবস্থাসমূহের মধ্যে আন্তঃযোগাযোগ কাঠামোর খসড়া সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আমাদের অবস্থান

বাংলাদেশের ই-স্বাস্থ্য সেবা সংক্রান্ত মানদণ্ডসমূহ ও তথ্য-ব্যবস্থাসমূহের মধ্যে আন্তঃযোগাযোগ কাঠামোর খসড়া

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস শাখার উদ্যোগে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য তথ্য ব্যবস্থার জন্য মানদণ্ড নির্ধারণ ও একই বা ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ডাটাবেইজসমূহের মধ্যে আন্তঃযোগাযোগ ব্যবস্থা (interoperability) নিশ্চিত করার লক্ষ্যে একটি খসড়া গাইডলাইন তৈরি করা হয়েছে। এ বিষয়ে

কমিউনিটি ক্লিনিকসমূহে টেলিমেডিসিন সেবা

ঢাকা, আগস্ট ২০১২। বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলে অবস্থিত বিভিন্ন কমিউনিটি ক্লিনিকসমূহ ইন্টারনেট সুবিধাসহ ল্যাপটপ কম্পিউটার পাচ্ছে।২০১২ সাল শেষ হবার আগেই আরও ৩,৫০০ ল্যাপটপ বাকি কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে সরবরাহ করা হবে। কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনা বর্তমান সরকারের মুখ্য কর্মসূচীগুলোর মধ্যে অন্যতম।

টেলিমেডিসিন সেবা এবং ইউনিয়ন তথ্য ও সেবাকেন্দ্র

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনস্থ অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) বাংলাদেশের ৪,৫৩৬টি ইউনিয়নে ইউনিয়ন তথ্য ও সেবাকেন্দ্র পরিচালনা করে থাকেন। এই কেন্দ্রগুলো স্থানীয় জনগণকে নামমাত্র চার্জে আইসিটি যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে মানসম্মত সেবা দিয়ে থাকে।